ছানার পান্তুয়া রেসিপি/chanar pantua recipe in bengali

আজকে আমরা শিখবো ছানার পান্তুয়া কিভাবে বানায় । ছানার পান্তুয়া রেসিপি chanar pantua recipe in bengali. পানতুয়া অনেকেই পছন্দ করেন আর খেতেও মজার আপনিও চাইলে বাড়িতে বানাতে পারেন নরম তুলতুলে ছানার পান্তুয়া ।  আপনারা জানেন আমি আগের দিন ছানার রসগোল্লা শেয়ার করেছিলাম যারা দেখেননি প্লিজ দেখে নেবেন।

Keya Naskar দ্বারা প্রকাশিত। 

ছানার পান্তুয়া
ছানার পান্তুয়া
chanar pantua

 

উপকরণঃ

  • ছানার জন্য (দুধ 1লিটার),
  • খোয়া তৈরীর জন্য (1লি দুধ),
  • 3 কাপ গুঁড়ো দুধ,
  • ¼ ঘৃ ,
  • ১চামচ এলাচ পাউডার,
  • চিনি 1½ কেজি,
  • ময়দা, সুজি অল্পকরে,
  • সাদা তেল ½ লিটার,
  • লেবুর রস ৫ চামচ (ছেঁকে নিন)।
  • নকুল দানা/কাজুবাদাম কুচি অল্পকরে।

 

প্রস্তুতি প্রণালীঃ

প্রথমে পুরো গরুর দুধটা গরম করে নিন। যেন সর না পড়ে। ২ মিনিট ঠাণ্ডা করে ½ কাপ জলে 3 চামচ লেবুর রস/ ২ চামচ সাদা ভিনেগার দুধে ভালো করে মিশিয়ে ছানা বের করে নিন।

পরিষ্কার কাপড়ে ছানাটা ছেঁকে নিন। উষ্ণ গরম থাকতে থাকতে ছানাটা হাতের চেটোর সাহায্যে মেখে চাপা দিয়ে রাখুন। এবার একটা ডেজকি/ননস্টিক কড়াতে 1½ কেজি চিনি তার দ্বিগুন 75০ গ্ৰাম জল দিয়ে মিডিয়াম আঁচে ফোটান রসের মধ্যে এলাচ গুঁড়ো, এক চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন,

একটা চামচে করে রসটা দেখে নিন হালকা চটচটে হলে অর্ধেকটা রস তুলে নিন। বাকিটা আরও একটু ঘন করে নিন। গাওয়া ঘৃ ফোটানো দুধ, গুঁড়া দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে প্রথমে মিডিয়াম আঁচে এবং পরে অল্প আঁচে ঘন ঘন নেড়ে নেড়ে বেশ আঠালো মণ্ড তৈরি করে, খোয়া বানিয়ে নিন, খোয়া হালকা গরম থাকতে থাকতে হাতের চেটোর সাহায্যে মেখে নিন।

সব সময় মনে রাখবেন খোয়া যদি ২ কাপ হয় তাহলে তার 1 কাপ ছানা/পনির দিয়ে ½ কাপ ময়দা , 1 চামচ সুজি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নেবেন। এবার লুচির মাপের লেচি কেটে নিন, লেচির ভিতরে একটা করে নকুল দানা/কাজুবাদাম কুচি দিয়ে গোল গোল নাড়ুর মতো পাকিয়ে নিন, যেন একটু ও ফাটা না থাকে।

এবার কড়া গরম করে তাতে সাদা তেল গরম করে সানচা দিয়ে তেল টাকে ভালো করে নাড়ুন, এবার একটা একটা করে ছাড়ুন, গ্যাস আস্তে করে রেখে দিন । গোল্লা গুলো ছাড়া হয়ে গেলে উপর উপর তেল টাকে চাপ দিন। কিছুক্ষন পর দেখবেন গোল্লা গুলো উপরে ভেসে উঠবে।

(মনে রাখবেন উষ্ণ উষ্ণ গরম রসে ভাজা গোল্লা গুলো দেবেন যদি রস বেশি গরম থাকে তাহলে গোল্লা গুলো ভেঙে যাবে রস ঠাণ্ডা হলে গোল্লা তে রস ঢুকবে না), ভাজা গোল্লা গুলো প্রথমে পাতলা রসে দেবেন এবং বেশ মিনিট কুড়ি পরে গাঢ় রসে দেবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *